হ্যাকথেকে বাচান আপনারপ্রিয় ফেসবুক আইডি বাই মুরগীর গু.

হ্যাক থেকে বাচান
আপনার ফেসবুক
আইডি ।
বর্তমানে গনহারে
হ্যাক
করা হচ্ছে ফেসবুক
এক্যাউন্ট তাই
কিছু টিপস আপনাদের
জন্য ।
আশা করি আপনাদের
উপকার হবে ।
1. Secure
ব্রাউজিং Enable
করুন-
Secure
ব্রাউজিং বলতে মূলত
একটি সুরক্ষিত
ইন্টারনেট সংযোগের
মাধ্যমে ফেসবুক
ব্রাউজ
করাকে বুঝানো
হয়েছে।
নিরাপদ
কানেকশন এর
মাধ্যমে একটি সফল
হ্যাকিং আক্রমণ
থেকে 90%
ঝুকিমুক্ত
থাকা সম্ভব।
2. Login Approvals অন
করুন এতে
পাসওয়ার্ড
জানতে পারলেও লগিন
করতে পারবে
না কারন লগিন করার
সাথে সাথে আপনার
মোবাইলে
কনফার্মেশন
কোড
পাঠাবে এফবি
যতক্ষন না কোড
সাবমিট করেছেন
লগিন
হবেনা
আপনি নিরাপদ দ্রুত
আপনার পাসওয়ার্ড
পরিবর্তন করেন ।
3. Text message
নাটিফিকেশন Active
করুন- ফেসবুক সকল
FB ব্যবহারকারীদের
বিনামূল্যে টেক্সট
মেসেজ
নাটিফিকেশন সুবিধা
প্রদান করছে। যখন
কোনো কম্পিউটার
অথবা
মোবাইল
থেকে আপনার
একাউন্টে ঢোকা হবে
তখন টেক্সট মেজেস
নাটিফিকেশন
আপনার
কাছে পৌছে যাবে।
এরপর
আপনি সহজেই বুঝতে
পারবেন
আপনি নিজে অথবা
হ্যাকার
আপনার
একাউন্টে লগইন
করেছে কিনা। তখন
আপনি
দ্রুত আপনার
পাসওয়ার্ড
পরিবর্তন
করিতে
পারবেন।
4.
সর্বদা একটি
শক্তিশালী
পাসওয়ার্ড
তৈরি
করুন-
শক্তিশালী
পাসওয়ার্ড
হ্যাকার
থেকে
ফেসবুক একাউন্ট
সংরক্ষণ করার
সেরা উপায়।
যদি শক্তিশালী
পাসওয়ার্ড
তৈরি করতে চান
তাহলে আপনাকে
অবশ্যই
সর্বনিম্ন
৩টি ক্যাপিটাল
লেটার, ৩টি স্মলার
লেটার,
৩টি নাম্বারির
সংখ্যা
ব্যবহার
করতে হবে (
উদাহরণস্বরুপ-
MPSzon@123)। এই
ধরনের শক্তিশালী
পাসওয়ার্ড আপনার
ফেসবুক একাউন্টের
নিরাপত্তা

সুরক্ষা বৃদ্ধি করতে
সহায়তা করবে।
5. 3rd
পার্টি এপ্লিকেশন
ব্যবহার
করার সময়
সতর্ক থাকুন-
ফেসবুকে আরো মজা
এবং আরো
আরামদায়ক করার
জন্য তৃতীয়
পক্ষের
Apps
এর অভাব নেই।
কিন্তু এখন
হ্যাকাররা এগুলোকে
ব্যবহার করে তাদের
হ্যাকিং কার্যক্রম
চালিয়ে
যাচ্ছে। আমরা কোন
নির্দিষ্ট
সময়ে এগুলো
ব্যবহার
করে থাকি কিন্ত
ব্যবহার
শেষে সেগুলোকে
remove/disable
করতে ভূলে যাই।
এর ফলে আমাদের
ফেসবুক একাউন্ট
হ্যাক
হতে
পারে।
সুতরাং আপনার এপস্
সেটিং পৃষ্ঠায়
যান, তারপর
যেসব এপস্
আপনি ব্যবহার
করছেন
না সেগুলোকে
disable করে দিন।
6. আপনার
সিক্যুরিটি
কোয়েশ্চন
সেট
করা
থাকলে ভালো না
থাকলে আরো ভালো ।
তাই
সিকুরিটি কোয়েশ্চেন
সিলেক্ট করার
আগে
অবশ্যই সতর্ক
থাকতে হবে কারন
আমরা প্রায়
সব সময় সহজ
আনসার
দিয়ে রাখি তাই
সিক্যুরিটি আনসার
দেবার সময় অবশ্যই
সহজ
কোনো কিছু
না দিয়ে কঠিন কিছু
দিন ।
কারন
আমি দেখেছি প্রায়
বেশির ভাগ
এফবি
ব্যাবহার কারি কোন
টাউনে জন্ম গ্রহন
করেছেন
বা দাদি নানি পেশায়
কি ছিলেন
তা দিয়ে
রেখেছেন যে গুলার
উত্তর অনেকেই
আইডিয়া
করে সাবমিট
করে আপনার
এক্যাউন্টটি হ্যাক
করে নিতে পারে তাই
সিক্যুরিটি আনসার
দেবার
সময়
ভেবে চিনতে দিয়েন ।
যাতে সহজে কেউ
বের করতে না পারে ।
না দিলে ভালো এই
জন্য
বললাম কারন
সিক্যুরিটি
কোয়েশ্চেন
না থাকলে
এই প্রসেসে কেউ
আইডি নিতে পারবে না

7.
বর্তমানে এফবি (
Trusted
Friends
Password Recovery)
ট্রাস্টেড ফ্রেন্ড
চালু
করেছে যেটা অবশ্যই
ভালো কিন্তু
এইটা দিয়েও
আপনার আইডি হ্যাক
করে নিতে পারে ।
কারন
আপনার ট্রাস্টেড
ফ্রেন্ড সিলেক্ট
করা না থাকলে
যে কেঊ আপনার
আইডি তে ওর ৩
টা ফেইক
আইডি দিয়ে ফ্রেন্ড
রিকুয়েস্ট
পাঠিয়ে বন্ধু হবে
এবং পরে সামান্য
চেষ্টা করেই ওই ৩
টা আইডি
তে কোড
পাঠাতে পারবে এবং
আপনার
আইডি
হ্যাক করে নিবে ।
তাই যাদের
ট্রাস্টেড ফ্রেন্ড
সিলেক্ট করা নয়
আজি সিলেক্ট
করেন
এবং
আপনার
আইডি সুরক্ষিত
রাখেন ।
::: Tips
টি পড়ে যদি
সামান্যতমও
উপকৃত হয়ে থাকেন
বা ভাল
লেগে থাকে,
তাহলে অবশ্যই
বন্ধুদের সাথে
Share করবেন।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s